কারণে-অকারণে তর্কে জড়াচ্ছেন, তার সহজ সমাধান

 

 

সৈয়দা সুলতানা নিপা : একটু চাপ নিয়ে কাজ করার সময় অল্প কথাতেই মাথা গরম হচ্ছে। এমনটা যদি মেজাজের অবস্থা হয় তাহলে সত্যিই ভাবার বিষয়। সকালে ঘুম থেকে উঠার পরই কারণে-অকারণে মেজাজ খারাপ। এমনকি সকালের নাশতা বা দুপুরের খাবারের সময় ছোট খাটো বিষয় নিয়েই সঙ্গীর সঙ্গে তর্কে জড়াচ্ছেন।

 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেকে এমন আচরণকে গুরুত্ব দেন না। তারা ভাবেন ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু আসলে তা কী হয়? হয় না। তবে এ ধরনের আচরণ দীর্ঘদিন চলতে থাকলে বড়সড় রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এক্ষেত্রে একটু সচেতন হলেই পরিস্থিতি থেকে নিজেকে দূরে রাখা সম্ভব। সেজন্য কিছু অনুশীলন প্রয়োজন। এবার তাহলে সেই অনুশীলনগুলো জেনে নেই-

 

কখনো যদি কোনো পরিস্থিতি বা পরিবেশে নিজেকে মানিয়ে নিতে না পারেন তাহলে সেই পরিবেশ এড়িয়ে চলুন। খানিকটা দূরে গিয়ে নিজের মতো করে নিজেকে সময় দেয়ার চেষ্টা করুন। এতে মনে প্রশান্তি চলে আসবে। মেজাজ ভালো থাকবে।

 

ডায়েরি লেখার যদি অভ্যাস না থাকে তাহলে অভ্যাস করুন। সারাদিনের সকল ভালো-মন্দ স্মৃতি ডায়েরিতে লেখুন। এতে রাগ কমবে। সেই সঙ্গে সর্বদা পজিটিভ চিন্তাভাবনা করুন। সকালে ঘুম ভাঙার পরই মুক্ত হাওয়ায় কিছুক্ষণ হাঁটতে থাকুন। প্রকৃতির আলো-বাতাস গায়ে লাগার ফলে সারাদিন ফুরফুরে মেজাজে কাটবে।

 

সবসময় রেগে থাকার পেছনে মানসিক অবসাদ থাকতে পারে। এটা একদমই অবহেলা করবেন না। অবহেলা কাটিয়ে তোলার উপায় বের করার চেষ্টা করতে হবে। হঠাৎ করেই রেগে যাওয়ার আগে পরিস্থিতি নিয়ে একটু হলেও ভাবুন। মাথা ঠান্ডা রাখার চেষ্টা করুন।

 

রাতে দ্রুত ঘুমিয়ে পড়ার চেষ্টা করুন। অপ্রয়োজনে শুয়ে শুয়ে মোবাইল ব্যবহার করবেন না। শোয়ার আগে চোখ বন্ধ করে মেডিটেশন করার অভ্যাস করুন।

 

কোনো কারণে যদি মাথা গরম হয় তাহলে যতটা সম্ভব তা ভুলে থাকার চেষ্টা করুন। মনে করবেন, আপনার হাতে সব কিছু নেই। আপনি চাইলেই সব করতে পারেন না। এতে রাগ বা মেজাজ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে আপনার।