সাবেক রাষ্ট্রপতি ও সাবেক প্রধান বিচারপতি সাহাবুদ্দিন আহমদের মৃত্যু

bhawalnews.com

 

নিউজ ডেস্কঃ সাবেক রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন আহমদ আজ সকাল ১০টা ২৫মিনিটে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগে ২০১৮ সালে ৮০ বছর বয়সে মারা যান সাহাবুদ্দীন আহমদের স্ত্রী আনোয়ারা আহমদ।

 

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও প্রধান বিচারপতি সাহাবুদ্দীন আহমদ জীবনের প্রতিটি ধাপে রেখে গেছেন মেধা ও প্রজ্ঞার স্বাক্ষর। ১৯৯০ সালে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে যখন ভয়াবহ রাজনৈতিক সংকট, কেউ কারও ওপর আস্থা রাখতে পারছিলেন না, তখনই অস্থায়ী সরকার প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নেন তিনি। তার অধীনে নির্বাচনের মাধ্যমে আবারও গণতান্ত্রিক ধারায় ফেরে বাংলাদেশ।

 

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও সাবেক প্রধান বিচারপতি সাহাবুদ্দিন আহমদের প্রথম নামাজে জানাজা আজ বিকেল ৪টা ১০ মিনিটে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় পাইকুড়া ইউনিয়নের নিজ গ্রাম পেময়ীতে অনুষ্ঠিত হয়। নেত্রকোনা কেন্দুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মইনউদ্দিন খন্দকার একথা জানান।

 

তিনি জানান, বিকেল তিনটার দিকে হেলিকপ্টারে সাহাবুদ্দিন আহমদের মরদেহ পেময়ী গ্রামে নিয়ে আসা হয়েছে। এরপর এখানে প্রথম জানাজা শেষে আবারও মরদেহ ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হবে। দ্বিতীয় জানাজা আগামীকাল রোববার সকাল ১০টায় জাতীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

 

আজ সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মুহাম্মদ সাইফুর রহমান বলেন, ‘সাহাবুদ্দিন আহমদের প্রথম জানাজা শনিবার বেলা ৪টায় নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলায় তার নিজ গ্রাম পেময়ীতে অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় জানাজা রোববার সকাল ১০টায় জাতীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।’

 

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর পুনরায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন সাহাবুদ্দীন আহমদ। ২০০১ সালের ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত তিনি এই দায়িত্ব পালন করেন।