বিশ্বের বিভিন্ন দেশ-প্রতিষ্ঠান বিপর্যস্ত ভারতের পাশে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের প্রতি এবার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে সৌদি আরব ও ফ্রান্স। করোনাভাইরাস মহামারিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়া দেশটিতে আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ করতে হিমশিম খেতে থাকা ৮০ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন পাঠাচ্ছে রিয়াদ। আর প্যারিসের পক্ষ থেকে অক্সিজেন ও এই সংক্রান্ত সামগ্রী পাঠানোর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া টেক জায়ান্ট গুগল এবং মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকে সহায়তার ঘোষণা এসেছে। করোনার প্রকোপে বিধ্বস্ত ভারতের জন্য ১৩৫ কোটি রুপির আর্থিক সাহায্য ঘোষণা করেছে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল। তবে সরাসরি ভারত সরকারের হাতে ওই টাকা তুলে দিচ্ছে না তারা।

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘গিভ ইন্ডিয়া’ এবং ইউনিসেফের মাধ্যমে চিকিৎসা সরঞ্জাম কিনতে, যে সমস্ত সংস্থা ঝুঁকিপূর্ণ রোগীদের নিয়ে কাজ করছে তাদের সাহায্যার্থে এবং মহামারি নিয়ে সচেতনতা তৈরিতে এই টাকা ব্যয় করা হবে। সোমবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা দেন গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই।

ভারতে ইতোমধ্যেই ৩১৮টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী দিনে প্রতিষেধক তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কাঁচামাল, টেস্ট কিট, ভেন্টিলেটর, পিপিই কিট এবং ওষুধপত্রও পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

গত কয়েকদিনে বিশ্বরেকর্ড সংক্রমণের মধ্যে চরম অক্সিজেন সংকটে ভেঙে পড়তে বসেছে ভারতের চিকিৎসা ব্যবস্থা। এ অবস্থায় ‘সংহতির নিদর্শন’ হিসেবে দেশটিতে মেডিক্যাল সহায়তা পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে ‘চিরশত্রু’ পাকিস্তান। এক টুইটে পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি বলেন, পাকিস্তানের জনগণের পক্ষ থেকে আমি ভারতের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর প্রতি আন্তরিক সহানুভূতি জানাই।

উল্লেখ্য, রোগ করোনায় গত একদিনে বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে ভারতে। সোমবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৫২ হাজার ৯৯১ জন; আর এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২ হাজার ৮১২ জন।